শ্রীপুরে চাঁদাবাজী মামলার আসামীর পাল্টা মামলা

প্রকাশিত: ১০:১০ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ১৩, ২০১৯ প্রিন্ট করুন

শ্রীপুর(গাজীপুর)প্রতিনিধিঃ

শ্রীপুর পৌরসভার কেওয়া পশ্চিমখন্ড গ্রামে রাস্তার উপর পাকা বাউন্ডারী ওয়াল নির্মাণের ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঁদাবাজী মামলা ও অপরদিকে আসামী পক্ষের পাল্টা মামলার ঘটনা ঘটেছে।

কেওয়া পশ্চিম খন্ড গ্রামের মিয়া চান মোল্লার ছেলে বাদল মোল্লা বাদী হয়ে একই এলাকার ইমান আলী মোল্লা, ফয়সাল আহমেদ হৃদয়,ফাহিম খন্দকার,খন্দকার আবুল কালাম,খন্দকার মানিক,খন্দকার সাদ্দাম হোসেন,খন্দকার ফারুক আহমেদ,হিমেল,কাইয়ুম,জসিম,শাকিলকে বিবাদী করে চাদাবাজী,মারপিট,চুরি ও হুমকী প্রদানের অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করেছেন।

বাদল মোল্লা জানান,বিবাদী ইমান মোল্লা ও তার পুত্র ফয়সাল আহমেদ হৃদয় পৌর এলাকার ১৪ ফুট রাস্তার স্থলে ৮ ফুট রাখিয়া পৌরসভার রাস্তার উপর বাউন্ডারী নির্মাণের কাজে হাত দেন।রাস্তাটি একটি ব্যস্ততম রাস্তা যা দিয়ে প্রতিদিন শতশত বাড়ি ঘরের যাতায়তকারী চলাচল করে।এই রাস্তা দিয়ে ট্রাক,পিকআপসহ ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি চলাচল করে।এ আবাসিক এলাকায় শতাধিক ৫-৬ তলা ভবনসহ আধা পাকা বিল্ডিং নির্মাণ করা হয়েছে।পৌরসভার নিয়মের তোয়াক্কা না করে নির্মাণ কাজ চালালে বাদীর সাথে এলাকাবাসী বাধা দিলে ইমান আলী মোল্লার ছেলে ফয়সাল আহমেদ হৃদয় অন্যান্যদের যোগসাজশে জোড়পূর্বক বাউন্ডারী ওয়াল নির্মাণর কাজ চালাচ্ছে।অতঃপর বাধা প্রদানকারীকে বিবাদীগণ মারপিট করে এবং এ রাস্তা খুলে দিবেন মর্মে পঞ্চাশ লক্ষ টাকা চাদা দাবী করেন।

তাই তিনি এলাকাবাসীর সহযোগীতায় মামলা নং ৩৩/১০/১১/১৯ দায়ের করেছেন।

অপরদিকে চাদাবাজীর মামলার আসামী একই এলাকার সোহরাব উদ্দিনের পুত্র ইমান আলী মোল্লা মিথ্যা অভিযোগে বাদল মোল্লা,আবুল কালাম আজাদ মোল্লা,রইস উদ্দিন মোল্লা,কফিল উদ্দিন মোল্লাসহ অজ্ঞাতনামাদের নামে মারপিটের অভিযোগ এনে মামলা নং ৩৮/১১/১১/১৯ দায়ের করেছন।

শ্রীপুর থানার উপ-পরিদর্শক মোঃ জাফর উল্লাহ জানান,তদন্তপূর্বক চাদাবাজী মামলা নেয়া হয়েছে।

শ্রীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি)লিয়াকত আলী বলেন,সত্যতার ভিত্তিতে চাদাবাজীর মামলা ও মারপিটের মামলা নেয়া হয়েছে।