পাঁচ সহকর্মীকে খুন করে ভারতীয় সেনার আত্মহত্যা

প্রকাশিত: ৪:৫০ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ৫, ২০১৯ প্রিন্ট করুন

মহানগর বার্তা ডেস্ক: নিজেদের মধ্যে সংঘর্ষের জেরে নিহত হলেন ভারতের আধাসামরিক বাহিনী ‘ইন্দো-তিব্বত বর্ডার’ এর ছয় সেনা সদস্য। বুধবার সকালে ঘটনা ঘটেছে মাওবাদী অধ্যুষিত ভারতের ছত্তিশগড় রাজ্যের বাস্তার ডিভিশনের নারায়নপুর জেলায়।

ছত্তিশগড়ের ডিজিপি ডি.এ. অবস্তি জানান, নারায়নপুরের একটি সেনা শিবিরে এদিন সকালে কয়েকজন সেনার মধ্যে বিবাদ হয়। এরপরই এক সেনা সদস্য তার সার্ভিস রাইফেল থেকে পাঁচ সহকর্মীকে গুলি করে। ঘটনাস্থলেই তাদের মৃত্যু হয়। এরপর ওই সেনা সদস্য নিজেও আত্মহত্যা করেন। এই ঘটনায় দু’জন সেনা সদস্য আহত হয়েছেন, তাদেরকে এয়ার লিফটারে করে রায়পুরে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়। দুর্ঘটনার পরই ঘটনাস্থলে যান রাজ্য পুলিশের আইজি (বাস্তার রেঞ্জ) সুন্দররাজ. পি এবং পুলিশ সুপার মোহিত গর্গ।

বুধবার সকাল সাড়ে ৯টা নাগাদ কাদেনার অঞ্চলে অবস্থিত আইটিবিপি বাহিনীর বি/৪৫ ব্যাটেলিয়নের ক্যাম্পে এই হত্যাযজ্ঞ চলে। আইটিবিপি সূত্রে জানা গেছে, আত্মঘাতী ওই সেনা সদস্যের নাম মাসুদুল রহমান। তার বাড়ি পশ্চিমবঙ্গের নদীয়া জেলায়। নিজেকে গুলি করে হত্যা করার আগে বাহিনীর হেড কনস্টেবল মাহেন্দ সিং (হিমাচলপ্রদেশ), হেড কনস্টেবল দলজিৎ সিং (পাঞ্জাব), কনস্টেবল সুরজিত সরকার (পশ্চিমবঙ্গ), বিশ্বরূপ মাহাত (পশ্চিমবঙ্গ) এবং ব্রিজেশ (কেরালা)-নামে পাঁচ সহকর্মীকে হত্যা করে। আহত দু’জন হলেন কনস্টেবল এস.বি উল্লাস (কেরালা) এবং কনস্টেবল সীতারাম দুন (রাজস্থান)।