ঈশ্বরদী সরকারি কলেজর ৪ শিক্ষক অপসারণের দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল

প্রকাশিত: ৫:৩১ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২০ প্রিন্ট করুন

মোঃশামীম উদ্দিন (ঈশ্বরদী)পাবনা:আজ (১৭)ফেব্রুয়ারি
ঈশ্বরদী সরকারি কলেজের প্রধান ফটক তালাবদ্ধ করার ঘটনায় শিক্ষার্থীরা কলেজের সামনে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেছে ।
এক পর্যায়ে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা ফটকের তালা ভেঙ্গে ফেলে । সকালে তালা ভেঙ্গে ফেলার সময় বিক্ষুদ্ধ শিক্ষার্থীরা অধ্যক্ষ , ভূমিদস্যু ও কয়েকজন শিক্ষকের বিরুদ্ধে শ্লোগান দেন এবং তাদের অপসারণ দাবি করেন ।

প্রধান ফটক তালাবদ্ধকরণ প্রসঙ্গে ঈশ্বরদী সরকারি কলেজের শিক্ষক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সহযােগী অধ্যাপক মুরারী মােহন দাস বলেন , অধ্যক্ষ স্যার ফোনে নির্দেশ দেয়ায় প্রধান ফটকে তালা মারা হয়েছিল । তবে পশ্চিম পাশের পকেট গেট খােলা ছিল । উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি ও অত্র কলেজের ছাত্র রাকিবুল হাসান রনি প্রধান ফটকে তালা মারার ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন , ভুমিদস্যুদের মদদে অসৎ উদ্দেশ্যে অধ্যক্ষ গেট তালাবদ্ধ করেছেন । এসময় তিনি অধ্যক্ষ ও ৪ জন শিক্ষকের অপসারণের দাবি জানান । ঘটনাস্থলে উপস্থিত থানার অফিসার ইনচার্জ বাহাউদ্দিন ফারুকী বলেন , পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করে দেখছে ।

কলেজের অধ্যক্ষসহ সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে যােগাযােগ করে জানা যায় , কলেজের সামনের ১ . ৩৩ একর ব্যক্তি মালিকানাধীন জমি নিয়ে কলেজের সাথে দীর্ঘদিন মামলা মােকদ্দমা চলছে । এই মামলা উচ্চ আদালতে বিচারাধীন । গতকাল রবিবার রাতের কোন এক সময় কলেজের প্রধান ফটকে কর্তৃপক্ষ তালা লাগিয়ে দেয় । আজ সােমবার সকালে বিষয়টি কলেজের প্রধান ফটকের তালা লাগানাে দেখে শিক্ষার্থীরা বিক্ষুদ্ধ হয়ে উঠে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেন । কলেজের সামনের জমির মামলার বাদী মহিউদ্দিন ফোনে জানান , আমরা সকল ক্ষেত্রেই আদালতের রায় পেয়েছি । এরআগে হাইকোর্ট ওই জমি মন্ত্রণালয় হতে অধিগ্রহনের জন্য কলেজের অধ্যক্ষকে কার্যক্রম করার আদেশ দেন । কিন্তু অধ্যক্ষ অধিগ্রহনের কার্যক্রম না করে আপীল করেন । এজন্য উচ্চ আদালত আজ সােমবার অধ্যক্ষকে আদালতে স্বশরীরে হাজির হওয়ার জন্য তলব করেছে ।

এ বিষয়ে ঈশ্বরদী সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ড . আব্দুর রহিমকে ফোনে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন , কলেজ ক্যাম্পাসে সন্ত্রাসী ও মাদকসেবী রাতে যাতে প্রবেশ করতে না পারে সেজন্য রাতে প্রধান ফটকে তালা দেয়ার নির্দেশনা ছিল । হাইকোর্টে তলবের সত্যতা স্বীকার করে তিনি বলেন , বিচারাধীন মামলা প্রসঙ্গে কোন বলতে চাই । মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা মােতাবেকই কাজ করছি । তিনি আরাে বলেন , জমি – জমা নিয়ে মামলা – মােকদ্দমার বিষয়ে আমরা শিক্ষক মানুষ কিছুই বুঝি না । তাই আমি ও উপাধ্যক্ষ বদলীর জন্য ইতােমধ্যেই উৰ্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের কাছে । আবেদন জানিয়েছি ।