শ্রীপুর ট্যুরিজম বাইকার্সের সুনামগঞ্জের শিমুলবাগান ও নীলাদ্রি লেক ভ্রমন সম্পন্ন

প্রকাশিত: ৫:৫০ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২০ প্রিন্ট করুন

আফজাল হোসেন, শ্রীপুর (গাজীপুর)- ঋতুরাজ বসন্তে জয়নাল আবেদীনের শিমুলবাগানে ভিড় করছে হাজারো পর্যটক।

তাহিরপুর উপজেলার উত্তর বাদাঘাট ইউনিয়নের মানিগাঁও গ্রামে এই শিমুলবাগান। তার পাশেই আরেক পর্যটন স্থান বারিক্কাটিলা উঁচু এই টিলার ওপর থেকে দেখা যায় ভারতের মেঘালয়ের বড় বড় পাথুরে পাহাড়।নিচে বাংলাদেশের সীমান্তে আশ্চর্য সুন্দর জাদুকাটা নদীতে মানুষ ছোট ছোট নৌকায় করে নদী থেকে পাথর আর কয়লা তুলার অপরূপ দৃশ্য। তার কিছু দূরে নীলাদ্রির অবস্থান কেউ বলে বাংলার কাশ্মির, আবার কেউ বলে নীলাদ্রি। সৌন্দর্যে ভরা এই জায়গাটা আমাদের বাংলাদেশেই, বলছি সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার টেকেরঘাট মেঘালয় সীমান্তবর্তী শহীদ সিরাজী লেকের কথা।

নীলাদ্রি লেকের অবস্থান ভারতের মেঘালয় সীমান্তবর্তী উপজেলার উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের ট্যাকেরঘাটে।

গাজীপুরের ঐতিহ্যবাহী শ্রীপুর ট্যুরিজম বাইকার্স যুব উন্নয়ন সংঘের উদ্দ্যোগে একদিনের ভ্রমনে ৫০০ কিঃ মিঃ ভ্রমন সম্পন্ন করেছে পর্যটক দলটি। গত ২২ ফেব্রুয়ারি শনিবার ভোরে ট্যুরিজম বাইকার্সের সভাপতি খন্দকার মাসুদ রানা ও সাধারন সম্পাদক সাংবাদিক আরিফ মন্ডলের নেতৃত্বে গাজীপুরের শ্রীপুর থেকে ২২ টি বাইকে করে ৪১ জন পর্যটক সুনামগঞ্জের তাহিরপুর ভ্রমনের উদ্দেশ্যে যাত্রা করে।পরে ময়মনসিংহ, নেত্রকোনার কলমাকান্দা ও পাঁচগাও বর্ডার রোড ধরে ট্যাকেরঘাট পৌঁচ্ছায়। পরে তাহিরপুরে প্রয়াত জয়নাল আবেদীনের রোপণ করা শিমুলবাগান পরিদর্শন শেষে ভারতের মেঘালয়ের কূলঘেঁষে জাদুকাটা নদীর পাশে বারিক্কাটিলায় অবস্থান করে।

পরবর্তীতে দুপুরের খাবার শেষে নীলাদ্রি, শহীদ সিরাজ লেক, ট্যাকেরঘাট চুনাপাথর খনিজ প্রকল্পের পরিত্যক্ত কোয়ারি ও টাঙ্গুয়ার হাওর পরিদর্শন করে ফেরার পথে ময়মনসিংহের পর্যটন কেন্দ্র ঘুরে রাত সাড়ে ৯ টার দিকে শ্রীপুরে ফিরে আসেন পর্যটক দলটি।

জয়নাল আবেদীনের বড় ছেলে সাবেক চেয়ারম্যান মো. রাখাব উদ্দিন সাথে কথা বলে জানাযায়, ১৬ বছর আগে আমার বাবা বাদাঘাট (উত্তর) ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীন নিজের প্রায় ২ হাজার ৪০০ শতক জমিতে প্রায় তিন হাজার শিমুলগাছ রোপন করেন। তা ছাড়াও টাঙ্গুয়ার হাওরে আসে পাশে গাছ গুলো উনার নিজ হাতের লাগানো। তিনি একজন প্রকৃতি প্রেমী ছিলেন।

শ্রীপুর ট্যুরিজম বাইকার্সের সভাপতি খন্দকার মাসুদ রানা জানান, শ্রীপুর ট্যুরিজম বাইকার্স একটি অ্যাডভেঞ্চার প্রিয় পর্যটক সংগঠন।

যারা দুঃসাহসিক ভ্রমনে নতুন নতুন চ্যালেঞ্জ নিতে পছন্দ করে। ইতি মধ্যে সংগঠনটি বাইকে করে প্রায় বাংলাদেশের সকল জেলা ভ্রমন সম্পন্ন করেছে। আর এই ঋতুরাজ বসন্তে আমাদের ভ্রমন ছিলো সুনামগঞ্জের শিমুলবাগান সহ অন্যান্য পর্যটন কেন্দ্র গুলো। আমাদের পর্যটকরা একদিনে ৫০০ কিঃ মিঃ ভ্রমন সম্পন্ন করে সুস্থ ভাবে বাড়ি ফিরে এসেছে। আমরা আগামী দিনগুলোতে ট্যুরিজম বাইকার্সের পর্যটকদের নিয়ে বাইকে করে দেশের বাহিরে ভারতের ভ্রমনের চিন্তা করছি।