শ্রীপুরে প্রতারনার আরেক নাম বেষ্ট ওয়ানওয়ে মার্কেটিং এজেন্সি

প্রকাশিত: ৩:৫১ অপরাহ্ণ, মার্চ ২, ২০২০ প্রিন্ট করুন

আফজাল হোসেন(নিজস্ব প্রতিবেদক):  সরকারের অনুমতি ছাড়াই দাপটের সাথে চালিয়ে যাচ্ছে বেষ্ট ওয়ান মার্কেটিং এজেন্সি নামক ভুয়া(এমএলএম) কোম্পানি। নজর নেই  অর্থ মন্ত্রণালয়ের সেই সাথে উদাসিন ভুমিকা পালন করে আইন শৃংখলা বাহিনীর লোকাল থানা পুলিশ।

গ্রাম থেকে আসা মানুষদের আকৃষ্ট করতে গাজীপুর জেলার শ্রীপুর উপজেলার প্রশিকা মোড়ে অবস্থিত স্বাধীনতা টাওয়ারের তৃতীয় তলায় সুবিশাল পরিসরে প্রতারণার এই ব্যবসা পরিচালনা করছেন তপন নাগ নামক একজন ব্যবসায়ী। আর এদের প্রতারণার ফাঁদে পা দিয়ে সর্বস্বান্ত হচ্ছেন এলাকা ও বাহির থেকে আসা হাজারো মানুষ।

অত্যন্ত লোভনীয়, অকল্পনীয়, অফার আর অল্পদিনে কোটিপতি হবার স্বপ্ন নিয়ে ঝুঁকছে দেশের হাজার হাজার বেকার যুবক। শুধু বেকার যুবকই নয়, অনেক শিক্ষিত কর্মজীবী লোকজনও ছুটছে এই ব্যবসার দিকে।

আলাদীন এর যাদুর প্রদীপ এর মত রাতারাতি কোটিপতি হতে কে না চায়! কিন্তু আমাদের দেশের এম এল এম ব্যবসা যেই ভাবে এগুচ্ছে তাতে করে এর ভয়াবহতা আমরা ইতি মধ্যেই টের পেয়েছি। সামনে ও পাবো হয়তোবা । আমেরিকার কনসেপ্ট মাথায় নিয়ে শ্রীলঙ্কার এক ভদ্র লোক আই লিঙ্ক নামের একটি প্রতিষ্ঠান এর মধ্যে দিয়ে এই দেশে এম এল এম ব্যবসার সাথে যুক্ত হন।

বেষ্ট ওয়ানওয়ে মার্কেটিং এজেন্সির ম্যানেজার মোস্তফা কামাল জানান, এই ব্যবসা পরিচালনার জন্য শুধুমাত্র ট্রেড লাইসেন্স থাকলেই হয়।টাকার বিনিময়ে প্রশাসনকে ম্যানেজ করেন তারা।উত্তরা হেড অফিস থেকেই সকল কিছু পরিচালনা করা হয়।তাদের এখানে প্রতিদিন একশত যুবককে প্রশিক্ষন দেয়া হয়। মাসব্যাপী প্রশিক্ষনে প্রতিজনের কাছ থেকে পাঁচ হাজার টাকা করে নেয়া হয়। এসময় তথ্য সংগ্রহ করতে যাওয়া সাংবাদিকদের প্রকাশ্যে টাকা দিয়ে সংবাদ প্রকাশ না করার অনুরোধ জানান তিনি।

এ ব্যাপরে শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) লিয়াকত আলী জানান,এ বিষয়ে আমি অবগত নই।যদি কেউ লাইসেন্স ছাড়া কোন এমএলএম ব্যবসা পরিচালনা করে থাকে তবে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।