চার শতক জমিতে তিন প্রতিবন্ধীর মানবেতর জীবন

প্রকাশিত: ৩:৪৮ অপরাহ্ণ, মার্চ ৩, ২০২০ প্রিন্ট করুন

আফজাল হোসেন (নিজস্ব প্রতিবেদক)- গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার কাওরাইদ ইউনিয়নের যুগীরসিট গ্রামে একই পরিবারের তিনজন শারীরিক প্রতিবন্ধী মানবেতর জীবনযাপন করছেন।

ভিটেমাটি বলতে মাত্র চার শতক জায়গা।তারপর আবার দুই প্রতিবন্ধী সন্তানকে নিয়ে দিশেহারা বাবা।যেখানে নুন আনতে পান্তা ফুরায় অবস্থা, সেখানে সন্তানদের ভরন-পোষণ দিতে রীতিমত হিমশিম খাচ্ছেন সিরাজউদ্দিন। কারন তিনি নিজেও একজন শারীরিক প্রতিবন্ধী।

কিছুদিন আগেও তার শরীরে কাজ করার মতো শক্তি সামর্থ্য ছিল।এখন বয়স বাড়ার সাথে সাথে শারীরিকভাবেও অক্ষম হয়ে পড়েছেন তিনি।
সিরাজউদ্দিন(৫৭) জানান,তার ৬ সন্তানের মধ্যে তিন জনই শারিরিক ভাবে (খাটো)প্রতিবন্ধী।অভাবের সংসার তাই বড় তিনজনকে বিয়ে দিয়েছি।তাদের একজনের স্বামীও আবার প্রতিবন্ধী।

এখন দুই সন্তান ফাইজুদ্দিন(২৫),ফাহিমা(১৭) তাদের দেহের উচ্চতা ৩৬ ইঞ্চি,কারও ৩৮ ইঞ্চি।শারিরিকভাবে প্রতিবন্ধী হওয়ায় তাদের মিলছেনা কোন কাজ।সেই সাথে এখনো ভাগ্যে জোটেনি সরকারি কোন সহায়তা।

কিছুদিন পূর্বে স্থানীয় মেম্বার এসে ২টি রেশন কার্ড করে দিয়েছিল কিন্তু গত বছরে মাত্র তিন বার রেশন পেয়েছিলেন বলে জানান তিনি।

এ ব্যাপারে কাওরাইদ ইউনিয়ন পরিষদের ৪নং ওয়ার্ডের সদস্য মমিনুল ইসলাম জানান,শারীরিক প্রতিবন্ধী পরিবারকে সমাজসেবা অফিসে আবেদন করতে হবে।সেখানে আবেদনের পর আমি তাদের সহযোগীতার ব্যবস্থা করতে পারবো।

শ্রীপুর উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মন্জুরুল ইসলাম জানান,আমার মনে হচ্ছে তারা প্রতিবন্ধী নয় বামন।কিছুদিন পূর্বে সরকার বামনদের একটি তালিকা প্রনয়নের জন্য পরিসংখ্যান বিভাগকে দায়িত্ব দিয়েছিল তবে সেটি এখনো হালনাগাদ হয়নি।তারপরও এলাকার চেয়ারম্যান যদি আমার কাছে তাদের তালিকা পাঠায় তাহলে আমি সরকারি সহযোগীতার ব্যবস্থা করে দিব।