কালীগঞ্জে করোনা রোগীর সংখ্যা বাড়ছে, আক্রান্ত ডাক্তার, নার্স ও পুলিশসহ ২৩

প্রকাশিত: ৯:৩৩ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৬, ২০২০ প্রিন্ট করুন

মহানগর বার্তা,গাজীপুরঃ গাজীপুরের কালীগঞ্জে বাড়ছে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। মাত্র পাঁচ দিনের ব্যাবধানে এ সংখ্যা দাড়িয়েছে ৩৭জনে।

গত ২৪ ঘন্টায় করোনা সন্দেহে ৫১ জনের নমুনা সংগ্রহ করে জাতীয় রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষনা প্রতিষ্ঠান(আইইডিসিআর) এ পাঠানো হয়। নমুনা পরীক্ষার পর আজ একদিনেই ২৩ জন শনাক্ত হয়েছে। গত ১২ই এপ্রিল প্রথম ৫জন করোনা রোগী শনাক্ত হবার পর দ্বিতীয় দিন ৩জন, তৃতীয় দিন ১জন, চতুর্থ দিন ৫জন ও আজ ২৩জন বেড়ে মোট করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে ৩৭জন। সরকারি নির্দেশনা ও সামাজিক দুরত্ব না মানায় এর সংখ্যা বাড়ছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

বৃহঃস্পতিবার(১৬ এপ্রিল) দুপুরে জাতীয় রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষনা প্রতিষ্ঠান(আইইডিসিআর)এর পরিচালক অধ্যাপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা অনলাইন প্রেস ব্রিফিংয়ে সারাদেশে নতুন করে যে ৩৪১ জন করোনা আক্রান্তের তথ্য দিয়েছেন তাদের মধ্যে কালীগঞ্জের ২৩ জন।

এদের মধ্যে উপজেলা স্বাস্থ কমপ্লেক্সের ৫জন ডাক্তার, ৪ জন নার্স, ২ জন স্যাকমো, ১ জন ক্যাশিয়ার, ১জন ওটি বয় , কালগিঞ্জ থানার ১জন পুলিশ সদস্য, পৌর এলাকায় ৩ জন,বক্তারপুর ইউনিয়নে ভাটিরা গ্রামের ৪ জন ও তুমুলিয়া ইউনিয়নে ২ জন রয়েছেন।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত আক্রান্তদের উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকাস্থ কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে। এবং রোগীর সংস্পর্শে আসা সকলের নমুনা সংগ্রহ করে করোনা টেস্টের জন্য জাতীয় রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষনা প্রতিষ্ঠান(আইইডিসিআর) এ পাঠানো হবে বলে জানান উপজেলা স্বাস্থ ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সাদেকুর রহমান আকন্দ।

এবিষয়ে উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা শিবলী সাদিক জানান, যারাই নোভেল করোনা ভাইরাস বা কোভিড ১৯ এ আক্রান্ত হবে তাদের বাড়িতে লাল নিশান টানিয়ে রোগীর হোম কোয়ারেন্টিন নিশ্চিতে বিশেষ নজরদারীতে রাখা হবে।

উল্লেখ্য, গত ১১ এপ্রিল পুরো গাজীপুর জেলাকে লকডাউন ঘোষণা করেন গাজীপুর জেলা প্রশাসক এসএম তরিকুল ইসলাম।