নীলফামারীতে আরো এক যুবক করোনায় আক্রান্ত

প্রকাশিত: ১০:২৪ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ২২, ২০২০ প্রিন্ট করুন

বিপুল রায়, নীলফামারীঃ নীলফামারী সদর উপজেলার লক্ষীচাপ ইউনিয়নের ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের এক যুবক(১৯) করোনা আক্রান্ত হওয়ার বিষয়ে নিশ্চিত করেছেন সিভিল সার্জন ডা. রনজিৎ কুমার বর্মন।

মঙ্গলবার (১৭ এপ্রিল) বিকালে রংপুর মেডিকেল কলেজের করোনা ভাইরাস পরীক্ষাগার হতে ঐ যুবকের করোনা পজেটিভের রির্পোট পায় জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ এবং তাকে সন্ধায় নীলফামারী আধুনিক সদর হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে নেওয়া হয়। এনিয়ে নীলফামারী সদর হাসপাতালে আইসোলেশন ইউনিটের করোনা আক্রান্ত রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছে ১০ জন।

সূত্র মতে জানা যায়, নীলফামারী সদর উপজেলার চাপড়া লক্ষীচাপ ইউনিয়নের ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের ঐ যুবক গাইবান্ধা জেলার সাঘাটা উপজেলায় নির্মান শ্রমিকের কাজ করতো। গত ১৫ এপ্রিল জ্বর, সর্দি ও কাঁশি নিয়ে নিজ বাড়িতে ফিরে আসে

সে এবং ১৬ এপ্রিল তার নমুনা সংগ্রহ করে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে করোনা পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রেরণ করে জেলা স্বাস্থ বিভাগ। মঙ্গলবার বিকালে পরীক্ষার ফলাফলে ঐ যুবকের করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পজেটিভ রির্পোট আসে।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে জানা যায়, জেলায় করোনা সন্দেহে মোট ২৮৬ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে তার মধ্যে ১৮০ জনের ফলাফল এসেছে জেলা স্বাস্থ বিভাগের কাছে। মঙ্গলবার (২১ এপ্রিল) পর্যন্ত জেলায় গত ২৪ ঘন্টায় ২৭৮ জনকে নতুন করে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। বর্তমানে জেলায় ৫ হাজার ৫৯৩ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে। উল্লেখ্য যে, এ নিয়ে জেলায় মোট করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ১০ জনে দাড়ালো।

গত ৭ এপ্রিল কিশোরগঞ্জ স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সের ঢাকা ফেরত এক চিকিৎসক, ৯ এপ্রিল সৈয়দপুরের খাতামধুপুর ইউনিয়নের নারায়নগঞ্জ ফেরত এক যুবক, ১১ এপ্রিল ডিমলা উপজেলার বালাপাড়া ইউনিয়নের গাজীপুর ফেরত এক ছাত্র, ১৩ এপ্রিল জলঢাকা উপজেলায় এক কলেজ ছাত্র, ১৪ এপ্রিল সদর উপজেলার টুপামারী ইউনিয়নের দলুয়া দোগাছি ঠাকুরপাড়া গ্রামের ১৬ বছর বয়সের কিশোর ও ডিমলা উপজেলার বালাপাড়ার দক্ষিন সুন্দরখাতা গ্রামের ১৮ বছর বয়সের এক যুবক, ১৭ এপ্রিল সদর উপজেলার চাপড়া সরঞ্জানী ইউনিয়নের চেয়াম্যান পাড়া গ্রামের দুইজন ও ডিমলা উপজেলার নাউতারা ইউনিয়নের পূর্বশালহাটি গ্রামের এক কিশোরী করোনা শনাক্ত হওয়ার বিষয় নিশ্চিত করে জেলা স্বাস্থ বিভাগ।