ভালবাসার বন্ধনে ওরা চারজন একই সারিতে চিরনিদ্রায় শায়িত। 

প্রকাশিত: ১০:২৮ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২৪, ২০২০ প্রিন্ট করুন

আফজাল হোসেন(নিজস্ব প্রতিবেদক): হাজার মাইল পেড়িয়ে ইন্দোনেশিয়ার মায়া ত্যাগ করে শুধুমাত্র  ভালোবাসার টানে বাংলাদেশে আসা স্মৃতি ফাতেমাকে ভালবাসা দেয়নি বাংলাদেশ।

গত ২৩ এপ্রিল (বৃহস্পতিবার) গাজীপুর জেলার      শ্রীপুর উপজেলার জৈনা বাজার এলাকায় সমাজের কিছু হায়েনা নৃশংসভাবে ছিঁড়ে  ছিঁড়ে খেয়ে, খুঁচিয়ে  খুঁচিয়ে মেরেছে স্মৃতি ফাতেমাসহ তার আদরের তিন সন্তান নূরা, হাওয়ারিন হাওয়া, ও ফাদিলকে।

ভালোবাসার মেলাবন্ধনে আজও তারা একই সারিতে চিরনিদ্রায় শায়িত।শত চেষ্টা করেও এদেরকে আলাদা করতে পারেনি মানুষ নামের নরপিশাচেরা।
প্রবাসী কাজলের গ্রামের বাড়ির আঙিনায় পরে আছে স্ত্রী ও তিন সন্তানের নিথর মরদেহ।করোনা ভাইরাসের কারনে মালয়েশিয়া থেকে বাংলাদেশে আসার কোন ফ্লাইট না পাওয়ায় শেষ দেখা হলো না আদরের ছেলে,মেয়ে ও স্ত্রীর লাশ।
শুক্রবার রাতে স্থানীয় মসজিদের ইমাম মোকলেছুর রহমানের ইমামতিতে জানাজার নামাজ শেষে ময়মনসিংহ জেলার গফরগাঁও উপজেলার পাগলা থানার লংগাইর ইউনিয়নের গোলাবাড়ি গ্রামে পারিবারিক কবরস্থানে নিহত চারজনের দাফন সম্পন্ন করে এলাকাবাসী।