খিলগাঁওয়ে চাঞ্চল্যকর বাশার হত্যা মামলার প্রধান আসামী র‌্যাবের হাতে গ্রেপ্তার

প্রকাশিত: ৯:৩৪ অপরাহ্ণ, মে ১৫, ২০২০ প্রিন্ট করুন


মহানগর বার্তা,ঢাকাঃ গত ১৩ মে ২০২০ তারিখে রাত আনুমানিক সাড়ে ১০ টার দিকে ঢাকার খিলগাঁও এলাকাধীন গোড়ান মাদানী ঝিলপাড় এলাকায় আবুল বাশার তালুকদার (৩২) নামে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যা করে কতিপয় ব্যক্তি।

উক্ত ঘটনায় নিহতের ভাই উজ্জল তালুকদার বাদি হয়ে খিলগাঁও থানায় একটি হত্যা মামলা রুজু করে যার মামলা নং-১০, তাং-১৪/০৫/২০২০, ধারা-৩০২/৩৪। মামলার বিবরণীতে জানা যায় যে, গত ১৩ মে ২০২০ তারিখে রাত আনুমানিক ২০৩০ ঘটিকার সময় খিলগাঁও থানাধীন গোড়ান মাদানী ঝিলপাড় এলাকায় নিহত আবুল বাশার তালুকদার এর উপর প্রতিপক্ষ সন্ত্রাসী গ্রুপের সদস্যরা অতর্কিতে আক্রমন করে আহত করে। আহত বাশারকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

উক্ত ঘটনার প্রেক্ষিতে র‌্যাব-৩ ঘটনা অনুসন্ধানে নামে এবং সন্দেহভাজন আসামীদের উপর নজরদারী শুরু করে। গোয়েন্দা তথ্যের মাধ্যমে উক্ত হত্যার অন্যতম প্রধান হোতা ও এজাহার নামীয় আসামী মোঃ শফিকুল ইসলাম শফিক (২৫) কে খিলগাঁও রেলগেট এলাকা হতে গত ১৪ মে ২০২০ তারিখ ২০০০ ঘটিকায় গ্রেফতার করে র‌্যাব-৩। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে শফিক উক্ত ঘটনার সঙ্গে নিজের সম্পৃক্ততা স্বীকার করে এবং তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত রক্তমাখা একটি রামদা উদ্ধার করা হয়। গ্রেফতারকৃত শফিককে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, খিলগাঁও এবং রামপুরা এলাকায় অবৈধ ইট, বালুর ব্যবসা এবং মাদকের ব্যবসার নিয়ন্ত্রন নিয়ে উক্ত এলাকার বিভিন্ন সন্ত্রাসী গ্রুপের মধ্যে দ্বন্দ ছিল। নিহত আবুল বাশার তালুকদার খিলগাঁও ও রামপুরা থানা এলাকায় ইট ও বালু সরবরাহের ঠিকাদারী করতো। ইট, বালুর ব্যবসার নিয়ন্ত্রন নিতে গিয়ে প্রতিপক্ষ সাইফুল গ্রুপের সঙ্গে দ্বন্দে জড়িয়ে পড়ে আবুল বাশার এবং দুই গ্রুপ এ বিষয়ে প্রায়ই সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এরই প্রেক্ষিতে এলাকায় আধিপত্য বিস্তার করতে গিয়ে প্রতিপক্ষ সন্ত্রাসী গ্রুপ বাশারের উপর এই হামলা চালায় যার প্রেক্ষিতে উক্ত আবুল বাশার তালুকদারে মৃত্যু ঘটে। এই চাঞ্চল্যকর হত্যাকান্ড সংঘটিত হওয়ার ২৪ ঘন্টার মধ্যে র‌্যাব এ ঘটনার অন্যতম হোতাকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।

গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।