লোকসানের ভাবনায় থমকে গেছে ঈশ্বররদীর লিচু ব্যবসায়ীদের জীবন

প্রকাশিত: ৭:৩৯ অপরাহ্ণ, মে ৩১, ২০২০ প্রিন্ট করুন

মোঃশামীম উদ্দিন (ঈশ্বরদী প্রতিনিধি) লিচুর রাজধানী হিসেবে খ্যাত পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলা

গ্রীষ্মের প্রখর গরমে বরাবরই বাড়তি কদর থাকে লিচুর। এবার করোনাভাইরাসের আতঙ্ক আর লকডাউনে পরিস্থিতি অনেকটাই ভিন্ন। লোকসানের ভাবনায় থমকে গেছে ঈশ্বররদীর লিচু ব্যবসায়ীদের জীবন। প্রতিবছরের মতো এবারও চড়া মূল্যে বাগানওয়ালাদের কাছ থেকে লিচু কিনেছেন মৌসুমি লিচু ব্যবসায়ীরা। কিন্তু করোনা আর লকডাউনে ঋণগ্রস্ত মৌসুমি ব্যবসায়ীরা আছেন লোকসানের শঙ্কায়।
ঈশ্বরদীর বিভিন্ন বাগানে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, লিচু ভাঙতে শুরু করেছেন ব্যবসায়ীরা। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় এবং সময়মতো বৃষ্টি হওয়ায় এবার লিচুর বাম্পার ফলন হয়েছে। ব্যবসায়ীরাও ভালো লাভের স্বপ্ন দেখেছিলেন। কিন্তু এখন তাঁদের কপালে চিন্তার ভাঁজ।

স্থানীয় লিচু ব্যবসায়ীরা জানান, লকডাউনের কারণে লোকজন কম থাকায় এবার লিচুর দামও অনেক কম। প্রতিবছর এ সময়ে ঈশ্বরদীর আগাম লিচুর দাম থাকে প্রতি হাজার লিচু ২২০০ থেকে শুরু করে ৪০০০ পর্যন্ত টাকা। এবার তা নেমে এসেছে ৭০০ থেকে শুরু করে ১৪০০ টাকা মাএ

বাগান মালিক আলেপ জানান, আগাম জাতের লিচুর জন্য দেশের ৬৪ জেলার পাইকাররা ঈশ্বরদী থেকে লিচু নিয়ে যান । কিন্তু লকডাউনের কারণে গাড়ি ও মার্কেট বন্ধ থাকায় লিচু লোকসান দিয়ে বিক্রি করতে হচ্ছে।