কয়রায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কারামুক্তি দিবসে ছাত্রলীগের দোয়া ও মিলাদ

প্রকাশিত: ৩:৩৯ অপরাহ্ণ, জুন ১২, ২০২০ প্রিন্ট করুন

হিরন্ময় সরকার, কয়রা (খুলনা) উপজেলা প্রতিনিধিঃ
বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কয়রা উপজেলা শাখার উদ্যোগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস পালন করা হয়েছে। ১১ জুন বৃহস্পতিবার বিকালে কয়রা উপজেলা আওয়ামীলীগের দলীয় কার্যালয়ে এ উপলক্ষে দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়।উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শরিফুল ইসলাম টিংকুর সভাপতিত্বে ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক আমিনুল হক বাদলের সঞ্চালনায় সামাজিক নিরাপদ দুরুত্ব বজায় রেখে স্বাস্থ্যবিধি মেনে প্রধানমন্ত্রীর কারা মুক্তি দিবসে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি তরিকুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক মাসুদ রানা শেফার, ছাত্রলীগনেতা, বিল্লাল,বিল্লু,রিজভী হাসনাত,রাজা, হাসান, রাজু, শান্ত, আশিক, বাহারুল,সোহাগ, শরিফুল, মফিজুল, জুবাইয়ের
প্রমুখ। এ সময় বক্তারা বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনাকে হত্যা ও দেশছাড়া করার জন্য স্বাধীনতা বিরোধীরা সব ধরনের চেষ্টা চালিয়েছে। কিন্তু মানুষের ভালোবাসা বারবার তাকে রক্ষা করেছে। তারা বলেন, ২০০৭ সালের ১৬ জুলাই সেনা সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকার প্রিয় নেত্রীকে গ্রেফতার করে এগারো মাস কারাগারে রাখে। তবুও তিনি অন্যায়ের কাছে মাথানত করেননি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দেশের মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন বলেও মন্তব্য করেন ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ। উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শরিফুল ইসলাম টিংকু বলেন, বাংলাদেশে রাজনীতিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাই হলেন গণতন্ত্রের সমার্থক ও প্রতীক। দেশে যখনই গণতন্ত্র আক্রান্ত হয়েছে, তখনই আক্রান্ত হয়েছেন রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা। কখনও তাঁকে হত্যা করে গণতন্ত্রকে নির্বাসনে পাঠানোর চেষ্টা করা হয়েছে। এসব ষড়যন্ত্রের জাল ছিন্ন করে তাঁর সততা, নিষ্ঠা এবং জনগণের ভালবাসায় সিক্ত হয়ে শেখ হাসিনা জনগণের মুক্তিদাত্রী হিসেবে আবির্ভূত হয়েছেন।
এসময় বঙ্গবন্ধু পরিবারের শহীদ সকল সদস্য ও প্রিয় নেত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু কামনায় বিশেষ মোনাজাত করা হয়।