শ্রীপুরে পৈতৃক সম্পত্তি ফিরে পেতে শহীদ মুক্তিযোদ্ধা কন্যার কান্না

প্রকাশিত: ৫:৫৭ অপরাহ্ণ, জুলাই ৬, ২০২০ প্রিন্ট করুন

আফজাল হোসেন,গাজীপুরঃ মুক্তিযুদ্ধের সময় ২বছরের একমাত্র শিশুকন্যা নাছিমা আক্তার ও স্ত্রী হাজেরা বেগমকে বাড়িতে রেখেই বঙ্গবন্ধুর ডাকে যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়া ২২ বছরের যুবক গাজীপুরের শ্রীপুরের ধনুয়া গ্রামের জামাল উদ্দিন শহীদ হন।

এতিম ও বিধবা হয়ে পড়েন সন্তান ও স্ত্রী। মা হাজেরা আক্তার পরে অন্যত্র সংসার সাজালেও দাদার আশ্রয়ে বড় হওয়া নাছিমা আক্তারের বিয়ে হয় একসময়। দাদা নিজেই জীবিত থাকাকালীন তার শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পুত্রের সম্পত্তি তার নাতিকে ভাগ করে দিয়ে যান। পরে দাদাও মারা যান। নিজে স্বামীর বাড়ী থাকায় দূর থেকে এসব সম্পত্তির দেখাশোনা করা সম্ভব ছিল না নাছিমার পক্ষে। তাই অনেকটা বিশ্বাস করেই চাচাদের দায়িত্বদিয়েছিলেন তার জমি দেখাশোনা করার। এটাই যেন কাল হয়ে উঠলো। এখনতো সমাজপতিদের সাথে নিয়ে ভাতিজির সম্পত্তি হরণের জোর চেষ্টা চালাচ্ছে তার চাচারা।

থানায় অভিযোগ দিলেও শহীদ মুক্তিযোদ্ধা জামাল উদ্দিনের একমাত্র কন্যার আকুতি ফিরে কি পাবো না পৈত্রিক জমির এই অধিকার?

এ বিষয়ে অভিযোগের তদারকি কর্মকর্তা শ্রীপুর থানার উপপরিদর্শক শুক্কুর আলী জানান,ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে তদন্ত করা হচ্ছে। যেহেতু জমি সংক্রান্ত বিষয় তাই উভয় পক্ষকে আগামীকাল(মঙ্গলবার) কাগজপত্র সহ থানায় ডাকা হয়েছে।