কুমিরের সঙ্গে লড়াই ,প্রাণে বাঁচালো গাভী

প্রকাশিত: ১০:১০ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২৫, ২০২২ প্রিন্ট করুন

মহানগর বার্তা ডেস্কঃ সুন্দরবনের শ্যালা নদীতে কুমিরের আক্রমণে আহত হয়েও বেঁচে ফিরেছে একটি গাভী। রোববার (২৪ জুলাই) বিকেলে মোংলা উপজেলার জয়মনি এলাকার সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগে চাঁদপাই ফরেস্ট লঞ্চঘাট সংলগ্ন শ্যালা নদীতে এ ঘটনা ঘটে।

মালিক শ্যামল মজুমদার বলেন, বিকেলে জয়মনি এলাকায় শ্যালা নদীতে আামার গাভীটি পানি খেতে নামে। এসময় একটি কুমির গাভীর পেছনে এসে আক্রমণ করে। এ সময় কুমিরটি পা টেনে গাভীটিকে গভীর পানিতে টেনে নিতে থাকে। তখন গাভীটিও পাল্টা প্রতিরোধ করে এবং কুমিরকে নিয়ে উপরে উঠে আসে। পরে স্থানীয়রা দ্রুত এগিয়ে আসলে কুমিরটি গরুর পা ছেড়ে নদীতে ফিরে যায়।

তিনি আরও বলেন, কুমিরের আক্রমণে গরুর পেছনের রান ও দুই পা জখম হয়েছে। রান ও পায়ের কয়েক স্থানের মাংস কামড়ে থেঁতলে গেছে। গরুটিকে উপজেলা প্রাণী সম্পদ কার্যালয়ে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

চাঁদপাই রেঞ্জ কার্যালয়ের বোটম্যান মো. মিজানুর রহমান বলেন, গাভিটি পানি খেতে নামতেই শ্যালা নদীর ওই জায়গায় থাকা একটি বিশাল কুমির তাকে আক্রমণ করে। কুমিরটি গরুর পেছনের ডান রানে কামড়ে ধরে টানতে থাকে। আর গাভীটিও ছাড়িয়ে যাওয়ার জন্য ওপরের দিকে উঠতে থাকে। গাভীর রান কামড়ে থাকা অবস্থায় কুমিরও প্রায় অর্ধেক পরিমাণ তীরে উঠে যায়। কুমির ও গাভীর ধস্তাধস্তি এবং গাভীর ডাকে লঞ্চঘাটের লোকজন ছুটে আসেন। পরে লোকজনের তাড়া ও শব্দে কুমির নদীতে চলে যায়। পরে গাভীটিকে সেখান থেকে উদ্ধার করে এনে মালিকের কাছে দিয়েছি। মালিক চিকিৎসার জন্য দ্রুতই পশু হাসপাতালে নিয়ে গেছেন।

সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের কর্মকর্তা (ডিএফও) মোহাম্মদ বেলায়েত হোসেন বলেন, নদীতে পানি খেতে নেমে একটি গরু কুমিরের আক্রমণের শিকার হয়। কুমির কামড়ে থাকা অবস্থাতেই গরুটি উপরের দিকে উঠে আসে। বনবিভাগ গরুটি উদ্ধার করে মালিকের কাছে হস্তান্তর করেছে।