রমজানের প্রথম দিনেই আকাশে অন্যরকম চাঁদ।

প্রকাশিত: ১০:৫৫ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৪, ২০২৩ প্রিন্ট করুন

আফজাল হোসেন(নিজস্ব প্রতিবেদক):সন্ধে যত গড়িয়েছে ততই ছড়িয়েছে আলোচনা। চাঁদের ঠিক নিচে ওটা কী ? উজ্জ্বল এক আলোকবিন্দু ঘিরে তুঙ্গে উঠেছে জল্পনা।

বাংলাদেশ,কলকাতা সহ এশিয়া মহাদেশের একাধিক জায়গায় এমন বিরল দৃশ্য চোখে পড়লো। বাংলাদেশের বিভিন্ন জায়গায় চাঁদের যে ছবি দেখা গিয়েছে তা দেখতে পেয়েই প্রায় সকলেই ছুটেছেন মোবাইলে তা ক্যামেরাবন্দি করতে। সঙ্গে চলেছে আলোচনা,জল্পনা। আসলে কী কোনও তারা, কোনও গ্রহ নাকি অন্য কিছু, মহাকাশের মহাজাগতিক আলো নিয়ে আলোচনার অন্ত নেই।

ইতিমধ্যে কলকাতার জ্যোর্তিবিজ্ঞানীরা খতিয়ে দেখতে শুরু করেন, আলোটি আসলে কী। পরে জানা যায়, আসলে শুক্রগ্রহের আলোর ছটায় তৈরি হয়েছে ওই আলোর বিন্দু।
্জ্যোর্তিবিজ্ঞানী দেবীপ্রসাদ দুয়ারি জানিয়েছেন,শুক্রবার সন্ধে হতেই কলকাতা সহ পার্শ্ববর্তী একাধিক জায়গা থেকে দেখা গিয়েছে এই দৃশ্য। সূর্যাস্তের পরই দেখা যায় যে, একফালি চাঁদের ঠিক নিচে জ্বলজ্বল করছে এক আলোকবিন্দু। ওই উজ্জ্বল আলোকবস্তুটি আসলে শুক্র গ্রহ।

কলকাতার সময় অনুযায়ী ৪ টে ৪৩ থেকে ৬ টা ৮ পর্যন্ত সময়ে চাঁদ ঢেকে ফেলেছিল শুক্র গ্রহকে (Venus)। যেন বলা যায়, শুক্র গ্রহের গ্রহণ হচ্ছিল। ৬ টা ৮ মিনিটের মাথায় গ্রহণ ছেড়ে তা বেরিয়ে আসে। যার পর আস্তে আস্তে আস্তে চাঁদ ও শুক্রের মধ্যে ব্যবধান খানিক বাড়তে শুরু করে। যার ফলেই তৈরি হয় এই আলো। অবশ্য মহাজাগতিক অদ্ভুত সুন্দর এক ঘটনা। যেটা সাধারণ মানুষ খালিচোখে দেখতে পেলেন।